জনপ্রিয় সংবাদ

x

বিশ্বসেরা ১৪ পর্যটন কেন্দ্র

রবিবার, ২০ নভেম্বর ২০১৬ | ১:০৭ এএম | 773 বার

Share on FacebookShare on Google+Tweet about this on TwitterShare on LinkedInPrint this page

অপার সৌন্দর্য্যে ভরা এ বিশ্ব। বিভিন্ন দেশেই বাংলাদেশের মতো বিশ্বের বিভিন্ন দেশেই ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে এ মহিমা। বিশ্বের সেরা ১৪ দর্শনীয় স্থান নিয়ে এবারের আয়োজন

তাজ মহল, ভারত
মর্মর প্রস্তর নির্মিত এ স্থাপনাটি বিশ্বের সবচেয়ে সুন্দর বিল্ডিং বলে খ্যাত। ১৭ শতকে মোগল সম্রান শাহ জাহান তার স্ত্রীর প্রতি ভালোবাসার নিদর্শনস্বরূপ এ স্থাপনাটি বানান।

গ্রেট ব্লু হোল, বেলিজ
স্ফটিকের মতো স্বচ্ছ পানির ১২৫ মিটার গভীরে ৩১০ মিটার চওড়া এ প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমণ্ডিত এলাকাটি ডাইভারদের জন্য অসাধারণ একটি এলাকা।

পোটালা প্যালেস, তিব্বত
দালাই লামার বাসস্থান ও বিশ্বের উচ্চতম রাজপ্রাসাদ এটি। ৫০ বছর লেগেছে ৩৭০০ মিটার উঁচু ১৩ তলা বিশিষ্ট প্রাসাদটি তৈরি করতে। এ ছাড়াও এতে রয়েছে এক হাজার কক্ষ।

ভিক্টোরিয়া জলপ্রপাত, জিম্বাবুয়ে/জাম্বিয়া
জিম্বাবুয়ে ও জাম্বিয়ার সীমান্তে অবস্থিত এ জলপ্রপাত বিশ্বের অন্যতম আকর্ষণীয় জলপ্রপাত।

মরেনো হিমবাহ, আর্জেন্টিনা
আর্জেন্টিনার দক্ষিণ-পশ্চিম সান্তা ক্রুজ এলাকায় পেরিতো মোরিনো হিমবাহ।

কিলাউইয়া, হাওয়াই
বিশ্বের সবচেয়ে সক্রিয় আগ্নেয়গিরি। গত তিন দশক ধরে এটা ক্রমাগত উদগিরণ করে যাচ্ছে।

এনগরংগরো আগ্নেয়গিরি জ্বালামুখ, তানজানিয়া
২৬০ বর্গকিলোমিটারব্যাপী বিস্তৃত ৬১০ মিটার গভীর এ এলাকাটি বিশ্বের বৃহত্তম আগ্নেয়গিরি সৃষ্ট গর্ত, যা পানিতে তলিয়ে যায়নি। এ এলাকার নীল ও সবুজ রং এবং বৈচিত্রময় প্রাণীজগত এ এলাকাকে বিশ্বের অন্যতম অপূর্ব এলাকায় পরিণত করেছে।

গ্রেট ওয়াল, চীন
সাড়ে ছয় হাজার কিলোমিটারব্যাপী বিস্তৃত চীনের এ মহাপ্রাচীরটি বিশ্বের মানবসৃষ্ট অন্যতম বড় নিদর্শন।

কৈলাস মন্দির, ভারত

হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের দেবতা শিবের জন্য উৎসর্গকৃত মন্দির কৈলাস। সাত হাজার শ্রমিক দেড়শ বছর ধরে খোদাই করে তৈরি করেছে বিশ্বের বৃহত্তম এ একক পাথরের স্থাপনাটি।

টেরাকোটা আর্মি, চীন
আট হাজার সৈন্য, ৬৭০টি ঘোড়া ও ১৩০টি রথের সমন্বয়ে এ পোড়ামাটির সৈন্যবাহিনী গঠিত হয়েছে। খ্রিস্টপূর্ব তৃতীয় শতকে নির্মিত এগুলো।

গ্র্যান্ড ক্যানিয়ন, যুক্তরাষ্ট্র
যুক্তরাষ্ট্রের কলোরাডোতে ২৯ কিলোমিটার পর্যন্ত চওড়া ও ১.৬ কিলোমিটার পর্যন্ত গভীর এলাকায় শুষ্ক এ গিরিখাতটি অবস্থিত।

হ্যাগিয়া সোফিয়া, তুরস্ক
এটি তুরস্কের একটি ঐতিহাসিক ধর্মীয় স্থাপনা। এটি প্রায় এক হাজার বছর বিশ্বের বৃহত্তম ক্যাথেড্রালের স্থান দখল করে ছিল।

গ্রেট রিফট ভ্যালি, ইথিওপিয়া
প্রায় ছয় হাজার কিলোমিটারব্যাপী বিস্তৃত এ এলাকাটি বিশ্বের বৃহত্তম ফাটলের ফলে সৃষ্ট উপত্যকা। রেড সি থেকে লেক মালাউয়ি পর্যন্ত বিস্তৃত এ এলাকাটি ৭৫ কিলোমিটার পর্যন্ত চওড়া।

জায়ান্ট কজওয়ে, উত্তর আয়ারল্যান্ড
প্রায় পাঁচ কোটি বছর আগে তৈরি এ ছয় কোনাবিশিষ্ট কলামগুলোকে দৈত্যের সিঁড়ি বলা হয়। তবে এর সৃষ্টির রহস্য এর চেয়েও আকর্ষণীয়।

২০১১-২০১৬ | টক্কিজবিডি ডটকম'র কোনো সংবাদ বা ছবি অন্য কোথাও প্রকাশ করবেন না

Design by: Web Q it solution | Development by: webnewsdesign.com